Advertisements


বৃষ্টি বলয় কি? এর ধরন কি কি?

  • Post category:Educational

বৃষ্টি বলয় কি?
আশাকরি পোস্টটি সম্পুর্ণ পড়বেন। সাধারনত গরমকালে ও বর্ষাকালে অথবা অনেকসময় শীতকালেও আমরা প্রায়ই পোস্ট করে থাকি যে ধেঁয়ে আসছে দেশের দিকে বৃষ্টি বলয় জুঁই, ঢল, প্রলয়, আঁখি ইত্যাদি। আসলে বাস্তবে বৃষ্টি বলয় বলতে কিছুই নেই।
তবে আপনারা হয়তো লক্ষ্য করেছেন বর্ষাকালে পরপর কিছুদিন দেশের সার্বিক আবহাওয়া গড়ে ৭০-৮০% ভালো থাকে, আবার দেখাযায় পরপর কিছুদিন দেশের সার্বিক আবহাওয়া ৭০-৮০% খারাপ থাকে বা ঝড়বৃষ্টি বেশি হয়।
তাই আমরা আপনাদের সহজভাবে বোঝানোর জন্য বৃষ্টিবলয় নামকরন করে থাকি। এবং সেভাবে পূর্বাভাস করে থাকি।

প্রতীকী চিত্রঃ বৃষ্টি বলয় আঁখি ২ (৪-৮ই ডিসেম্বর ২০২১)

•উদাহারন,
ধেঁয়ে আসছে দেশের দিকে বৃষ্টি বলয় ইশান ( b 30cm) ০৯ আগস্ট হতে ১৬ ই আগস্ট পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে দেশের অধিকাংশ স্থানে । এর মানে হলো এই তারিখের ভিতরে অধিকাংশ সময়ই দেশের আবহাওয়া খারাপ থাকবে, বৃষ্টি মোটামুটি পর্যায়ক্রমে আগে পরে কমবেশি দেশের সকল স্থানেই হতে পারে।
•একটি বৃষ্টি বলয়ের মেয়াদ যদি ৮ দিন থাকে তাহলে বুঝতে হবে এই ৮ দিনের ভিতরে ৫-৭ দিনই বেশি আক্রান্ত এলাকার আবহাওয়া মেঘলা ও বৃষ্টি ভেজা থাকতেপারে।

•আমরা বৃষ্টি বলয়ের বিভিন্ন বৈশিষ্টের উপর ভিত্তি করে এর এক এক প্রকার নামকরন করে থাকি। যেমন, বৃষ্টি বলয় “ঢল”, মানে হলো এতে এতো বৃষ্টি হতেপারে যে আক্রান্ত এলাকা প্লাবিত হতেপারে। বৃষ্টি বলয় “স্পার্ক”, এর মানে হলো এই বৃষ্টি বলয়ে ভয়াবহ বজ্রপাত হতে পারে ইত্যাদি।


প্রতীকী চিত্রঃ বৃষ্টিবলয় রিমঝিম(২৬ জুন টু ৮ জুলাই ২০২১)

•বৃষ্টিবলয়ের ক্যাটেগরিঃ
বিচ্ছিন্ন বৃষ্টি বলয় : মানে এই বৃষ্টি বলয়ে দেশের কয়েকটি স্থানে বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকে।
আংশিক বৃষ্টি বলয় : মানে হলো এই বৃষ্টিবলয় দেশের সকল এলাকায় বৃষ্টি দিতে সক্ষম হবেনা। সুধু কিছু নির্দিষ্ট এলাকায়ই বৃষ্টি দিবে।
পুর্ণাঙ্গ বৃষ্টি বলয় : মানে এই বৃষ্টি বলয়ে সারাদেশের ১০০% এলাকায় কমবেশি বৃষ্টি হবে।
স্থানিয় বৃষ্টি বলয় : এই বৃষ্টি বলয়ে দেশের একটি ছোট বা বড় স্থান আক্রান্ত হবে বা হতেপারে।

বৃষ্টিবলয়ের ধরনঃ
মৌসুমি বৃষ্টি বলয় : ( বর্ষাকালিন) কালবৈশাখী মুক্ত।
ক্রান্তীয় বৃষ্টি বলয় : ( গ্রীস্মকালীন/মৌসুম পরবর্তী) কালবৈশাখী/সিস্টেম যুক্ত।
এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে আরও কিছু বৃষ্টি বলয়ের নামকরন করা হয়।

বৃষ্টিপাত অনুযায়ী ক্যাটেগরিঃ
দুর্বল বৃষ্টি বলয় : ১ থেকে ২০ মি.মি.
মাঝারি বৃষ্টি বলয় : ২১ থেকে ৫০ মি.মি.
ভারি বৃষ্টি বলয় : ৫১ থেকে ১৫০ মি.মি.
অতিভারী বৃষ্টি বলয় : ১৫১ থেকে ২৫০ মি.মি.
প্রবল বৃষ্টি বলয় : ২৫১ থেকে ৪০০ মি.মি.
মহা বৃষ্টি বলয় : ৪০১ থেকে ৬০০+ মি.মি. বৃষ্টি

আপনারা খেয়াল করেছেন গরমকালে গরম পড়ে কিন্তু তাপপ্রবাহ শুরু হলে গরম একটু বেশি পড়ে, ঠিক একইভাবে বর্ষাকালে বৃষ্টি হয়, কিন্তু বৃষ্টি বলয় চালু হলে বৃষ্টি অনেক বেশিই হয়। এইজন্য এটিকে আমরা বৃষ্টি বলয় হিসেবে উপস্থাপন করি আপনাদের সহজভাবে বোঝাতে।

ও হ্যাঁ, বাংলাদেশে একমাত্র আমরাই প্রথম বৃষ্টি বলয় ভিত্তিক আবহাওয়ার পুর্বাভাস চালু করেছি এবং একমাত্র আমরাই(BWOT) এর নামকরন করে আপনাদের এর পুর্বাভাস করে থাকি, সুতরাং BWOT বা BWOT এর রেফারেন্স ব্যাতিত আর কোথাও যদি আপনারা বৃষ্টি বলয় বিষয়ে কোন পোস্ট দেখেন তাহলে বুঝতে হবে সেটা কপিরাইট লঙ্ঘিত।

আশাকরছি আমরা বিষয়টি আপনাদের বোঝাতে পেরেছি।
ধন্যবাদ : পারভেজ আহমেদ পলাশ
BANGLADESH WEATHER OBSERVATION TEAM- BWOT

Advertisements


Advertisements