Advertisements


আসছে পুর্ণগ্রাস সূর্য গ্রহন । ২০শে এপ্রিল ২০২৩

সূর্যগ্রহণ! সূর্যগ্রহণ! সূর্যগ্রহণ! হ্যাঁ, আগামী ২০ শে এপ্রিল সূর্যগ্রহণ সংঘটিত হতেযাচ্ছে। এই সূর্যগ্রহণ টি হবে পুর্নগ্রাস সূর্যগ্রহণ, মানে সূর্যগ্রহণ চলাকালীন সময়ে চাঁদ পুরোপুরি সূর্যকে ঢেকে ফেলবে।

সূর্যগ্রহণ টি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল ৭ টা বেজে ৩৪ মিনিটে।
পূর্ণগ্রাস গ্রহন শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল ৮ টা বেজে ৩৭ মিনিটে।
সর্বোচ্চ গ্রহণ হবে বাংলাদেশ সময় সকাল ১০ টা বেজে ১৬ মিনিটে।
পূর্ণগ্রাস গ্রহন শেষ হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর ১১ টা বেজে ৫৬ মিনিটে।
ও গ্রহন পুরোপুরি শেষ হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২ টা বেজে ৫৯ মিনিটে।

 


এটি ১৫০ বছর এর ভেতরে সবচেয়ে দীর্ঘ সূর্যগ্রহণ, মানে যে স্থানে পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ ঘটবে সে স্থানে সূর্য বেশ কিছুসময় সূর্য চাঁদের ছায়ায় ঢেকে থাকবে।  তবে দুঃখের কথা হলো এই গ্রহণের কোন অংশই বাংলাদেশ থেকে দেখা যাবেনা।

গ্রহনটি দেখা যাবে উত্তর পশ্চিম অস্ট্রেলিয়া, মালোয়শিয়া, দক্ষিণ থাইল্যান্ড, সুমাত্রা ইন্দোনেশিয়া ও এর পার্শ্ববর্তী এলাকা থেকে।

আসলে চাঁদ, সূর্য ও পৃথিবী যখন একই সরলরেখায় চলে আসে এবং সূর্য ও পৃথিবীর মাঝে চাঁদ চলে আছে তখনই সূর্যগ্রহণ সংঘটিত হয়েথাকে। এখানে চাঁদের ছায়া পৃথিবীর যে যে স্থানে পতিত হয় সেই সেই স্থান থেকে সূর্যগ্রহণ দেখাযায়।

সূর্যগ্রহণ একটি স্বাভাবিক প্রাকৃতিক ঘটনা, সুতরাং গ্রহন চলাকালীন সময়ে বাংলাদেশে যত প্রকার কুসংস্কার প্রচলিত আছে আপনারা দয়াকরে এগুলো এড়িয়ে চলবেন।

চাঁদ, সূর্য, পৃথিবী আল্লাহর আদেশে সবসময় একটি নির্দিষ্ট কক্ষপথে ঘুরছে, আর ঘুরতে ঘুরতে এমন একটা সময় আসে যখন চাঁদ সূর্য ও পৃথিবী একই সরলরেখায় চলে আসে। আর তখন সূর্যগ্রহণ ও চঁন্দ্রগহন সংঘটিত হয়।

গ্রহণ টি যেহেতু বাংলাদেশ থেকে দেখা যাবেনা, সুতরাং বাংলাদেশের মানুষদের এটা নিয়ে ভাবার কোন কারন নেই। ২০৩০ সালে বাংলাদেশ থেকে আংশিক সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে। তবে এই শতাব্দীতে বাংলাদেশ থেকে কোন পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ পুরোপুরি দেখাযাবেনা, শুধুমাত্র আংশিক দেখা যাবে। 

আর আপনি যদি ধর্মীয় বিষয় মাথায় রাখেন তাহলে এই সময় বেশি বেশি নফল নামাজ পড়বেন। কোন প্রকার কুসংস্কারে কান দিবেন না। ধন্যবাদ : BWOT WEATHER

নিম্নের এনিম্যাশন থেকে গ্রহনটির কভারেজ দেখে নিন।

credit: Time and date

Advertisements


Advertisements