Advertisements


মাসিক পূর্বাভাস | নভেম্বর ২০২২

BWOT নভেম্বর মাসের সংক্ষিপ্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাস। কেমন থাকতে পারে নভেম্বর ২০২২ সালের আবহাওয়া?
.
চলতি বছর নভেম্বর মাসে দেশের দক্ষিণ ও দক্ষিণ পশ্চিম অঞ্চলে স্বাভাবিক থেকে কিছুটা বেশি বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।
নভেম্বর মাসে সাগরে ২ থেকে ৩ টি সিস্টেম হতেপারে, যার ভেতরে একটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিনত হতেপারে।
নভেম্বর মাসে দেশের উপর কোন শৈত্যপ্রবাহ নেই।
আসুন তাহলে মুল পূর্বাভাসে ফিরি।
.
প্রথম সপ্তাহ : ১ টু ৭ ই নভেম্বর।


আকাশ, সপ্তাহ শুরুতে দেশের দক্ষিণ ও eপশ্চিম দিকের আকাশ আংশিক মেঘলা থাকতেপারে, তবে অধিকাংশ সময়ই দেশের আকাশ পরিস্কার থাকতেপারে।
.
বৃষ্টি : এই সময় দেশের অধিকাংশ এলাকায় বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই, তবে কক্সবাজার, বান্দরবান জেলার কিছু স্থানে বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে কিছুটা,
বৃষ্টিবলয় : না, এই সপ্তাহে দেশে কোন বৃষ্টিবলয় নেই
.
শৈত্যপ্রবাহ : নেই
তাপপ্রবাহ : নেই।
কুয়াশা : এই সপ্তাহে দেশের উত্তর অঞ্চলের নদী অববাহিকায় হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।
.
দিনের আকাশে ঝলমলে সূর্যের কিরণ : এই সপ্তাহে প্রতিদিন গড়ে ৩ থেকে ৫ ঘন্টা করে ঝলমলে সূর্যের কিরণ পাওয়া যেতে পারে, ও ৩ থেকে ৫ ঘন্টা ম্লান সূর্যের কিরণ পাওয়া যেতে পারে।
.
সিস্টেম : এই সপ্তাহে দক্ষিণ/দক্ষিন পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে ১ টি সার্কুলেশন থাকতে পারে।
গ্রহণ : চলতি সপ্তাহে কোন সূর্য ও চন্দ্র গ্রহন নেই।
.
দ্বিতীয় সপ্তাহ : ৮ টু ১৫ ই নভেম্বর, ২০২২,


আকাশ : এইসময় দেশের আকাশ প্রায় পরিস্কার থাকতেপারে, তবে ৯, ১০, ১১ ও ১২ তারিখে দেশের আকাশ অধিকাংশ এলাকায় আংশিক মেঘলা/মেঘলা থাকতে পারে। (সিস্টেমের গতিপথের উপর নির্ভরশীল)
.
বৃষ্টি : এই সপ্তাহের ৯ থেকে ১২ ই নভেম্বর এর ভেতরে দেশের বেশ কিছু এলাকায় বৃষ্টির কিছুটা সম্ভাবনা পাওয়া গেছে, তবে সেটা নির্ভর করছে একটি সিস্টেম এর গতিপথের উপর, তাই এটি পরিবর্তন হতে পারে।
*সিস্টেম বাংলাদেশের নিকটবর্তী হলে বৃষ্টি বেশি হতে পারে, কিন্তু শ্রীলঙ্কা/দক্ষিন ভারতে গেলে বৃষ্টি কম বা নাও হতে পারে।
.
বৃষ্টি বলয় : সিস্টেম এর গতিপথের উপর নির্ভর করে একটি বৃষ্টি বলয় আসতে পারে, ৯ টু ১২ ই নভেম্বর এর ভেতরে। কিন্তু শ্রীলঙ্কা/দক্ষিন ভারতে গেলে বৃষ্টিবলয় নাও আসতে পারে।
.
শৈত্যপ্রবাহ : নেই
তাপপ্রবাহ : নেই,
কুয়াশা : এই সপ্তাহে দেশের উত্তর ও উত্তর পশ্চিম অঞ্চলের নদী অববাহিকায় মাঝারি কুয়াশা পড়তেপারে।
.
দিনের আকাশে উজ্জ্বল সূর্যের কিরণ : এই সপ্তাহে গড়ে প্রতিদিন ২ থেকে ৪ ঘন্টা উজ্জ্বল সূর্যালোক পাওয়া যেতে পারে ও প্রতিদিন গড়ে ৪ থেকে ৬ ঘন্টা করে ম্লান সূর্যের কিরণ পাওয়া যেতে পারে।
.
সিস্টেম : এই সময়(৮-১১ নভেম্বর) সাগরে একটি সিস্টেম(লঘুচাপ-গভীর নিম্নচাপ) তৈরি হতেপারে, যা শ্রীলঙ্কা/দক্ষিণ ভারতে যেতে পারে। *পরিবর্তিত হতে পারে।
গ্রহণ : নভেম্বর মাসের ৮ তারিখে একটি পূর্ণ চন্দ্র গ্রহন আছে, যেটা আমাদের দেশ থেকে দেখা যাবে।
.
তৃতীয় সপ্তাহ : ১৬ টু ২৩ শে নভেম্বর,

Advertisements



আকাশ : এই সপ্তাহে দেশের আকাশ অধিকাংশ এলাকায় পরিস্কার থাকতেপারে। শেষের দিকে মেঘলা হতে পারে।
.
বৃষ্টি : এই সপ্তাহে সিলেট ও কক্সবাজার জেলার দু এক স্থানে কিছুটা বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। *শেষের দিকে বৃষ্টির আশঙ্কা থাকতে পারে অনেক এলাকায়।
.
বৃষ্টি বলয় : এই সপ্তাহে দেশে কোন বৃষ্টিবলয় নেই ইনশাআল্লাহ। তবে শেষের দিকে বৃষ্টিবলয় আসলেও আসতে পারে।
.
শৈত্যপ্রবাহ : নেই
তাপপ্রবাহ : নেই।
কুয়াশা : দেশের মধ্য ও উত্তর অঞ্চলের নদী অববাহিকায় হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা পড়তেপারে, ভোরের দিকে।
.
দিনের আকাশে উজ্জ্বল সূর্যের কিরণ : প্রতিদিন গড়ে ৪ থেকে ৭ ঘন্টা করে পাওয়া যেতেপারে ও ম্লান সূর্যের কিরণ, প্রতিদিন গড়ে ৩ থেকে ৪ ঘন্টা পাওয়া যেতেপারে।
.
সিস্টেম : সপ্তাহের মাঝামাঝি বা শেষ দিকে সাগরে একটি শক্তিশালী সিস্টেম(নিম্নচাপ-ঘূর্নিঝড়) তৈরি হতেপারে।
গ্রহণ : না, এই সপ্তাহে কোন গ্রহণ নেই।
.
চতুর্থ সপ্তাহ : ২৪ টু ৩০ শে নভেম্বর।


আকাশ : সপ্তাহ শুরুর থেকেই দেশের আকাশ অনেক এলাকায় আংশিক মেঘলা থেকে মেঘলা থাকতেপারে।
.
বৃষ্টি : এই সপ্তাহে দেশের অনেক এলাকায় মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। *সিস্টেমের গতিপথের উপর নির্ভরশীল।
.
বৃষ্টি বলয় : শক্তিশালী ক্রান্তীয় বৃষ্টি বলয় আঁখি ২ দেশের দিকে আসার কথা। ২৩ থেকে ২৮ শে নভেম্বর এর ভেতরে। সিস্টেমের উপর নির্ভরশীল।
.
শৈত্যপ্রবাহ : নেই
তাপপ্রবাহ : নেই
কুয়াশা : দেশের উত্তর অঞ্চলের নদী অববাহিকায় হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা পড়তেপারে।
.
দিনের আকাশে উজ্জ্বল সূর্যের কিরণ : গড়ে শেষের দিকে ২ থেকে ৪ ঘন্টা পাওয়া যেতেপারে ও, ম্লান সূর্যের কিরণ, গড়ে প্রতিদিন ৩ থেকে ৪ ঘন্টা করে পাওয়া যেতেপারে।
.
সিস্টেম : সপ্তাহ শুরুতে একটি শক্তিশালী সিস্টেম সাগরে থাকতে পারে যা হয়তো ঘূর্ণিঝড়ে পরিনত হতেপারে ও ভারত অথবা বাংলাদেশ উপকুলে আঘাত করতেপারে।
গ্রহণ : এই সপ্তাহে কোন গ্রহণ নেই।
.
নোট : যেহেতু এটি একটি দীর্ঘমেয়াদি মাসিক আবহাওয়ার পূর্বাভাস, সুতরাং এই পূর্বাভাস পরবর্তীতে কিছুটা পরিবর্তন হতেপারে, বিশেষ করে সিস্টেম গুলো কিছুটা পরিবর্তন হতেপারে এবং এর সাথে বৃষ্টিপাতও পরিবর্তন হতে পারে।
এইজন্য, আপনারা নিয়মিত আমাদের দৈনিক আবহাওয়ার পূর্বাভাস গুলো দেখুন।
এবং আরও ভালো নির্ভরযোগ্য আবহাওয়ার পূর্বাভাস পেতে আপনারা সরকারি আবহাওয়া অধিদপ্তর এর আবহাওয়ার পূর্বাভাস গুলো দেখুন।
.
Resource Used: Global Models & Dynamic Analysis.
.
ধন্যবাদ : BWOT WEATHER.
পোস্ট আপডেট : পহেলা নভেম্বর রাত ৭ টা বেজে ৪৮ মিনিটে।

Advertisements

Advertisements


Advertisements